এখন দুপুর ১:২৯ | আজ সোমবার | ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ | গ্রীষ্মকাল | ২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

ফুলবাড়ীয়া প্রতিদিন

এগিয়ে থাকে, এগিয়ে রাখে

ক্রীড়া

টানা চতুর্থ হার নিগারদের

সোমবার সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে বৃষ্টি আইনে নির্ধারিত ১৪ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১২২ রান করে ভারত। বৃষ্টি আইনে বাংলাদেশের জন্য লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারিত হয় ১২৫ রানের।

জবাবে খেলতে নেমে ১৪ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ৬৮ রানের বেশি করতে পারেনি বাংলাদেশ। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ২৫ বলে ২১ রান করেছেন দিলারা আক্তার।

বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরু থেকেই ভুগেছে বাংলাদেশ। ৫ বলে ১ রান করে ফিরছেন মুর্শিদা খাতুন। আরেক ওপেনার দিলারা উইকেটে থিতু হলেও সময়ের দাবি মিটিয়ে ব্যাটিং করতে পারেননি। ২৫ বলে করেছেন ২১ রান। তিনে নেমে ১৭ বলে ১৩ রান করেছেন রুবিয়া হায়দার।

টপ অর্ডার ব্যাটারদের এমন ধীর গতির ব্যাটিংয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় দল। বাকিরা চেষ্টা করেও দলকে ম্যাচে ফেরাতে পারেননি।

এর আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি ভারতের। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই সাজঘরে ফেরেন শেফালি ভার্মা। ২ রান করা এই ওপেনার শরিফা খাতুনের বলে রিতু মনির হাতে ক্যাচ দিয়েছেন। তবে তিনে নেমে রানের চাকা সচল রাখেন হেমলতা। তার ব্যাট থেকে এসেছে ১৪ বলে ২২ রান।

আরেক ওপেনার স্মৃতি মান্দানাও দারুণ শুরু করেছিলেন। তবে ইনিংস বড় করতে পারেননি। ১৮ বলে করেছেন ২২ রান। এরপর মিডল অর্ডার ব্যাটাররাও দ্রুত রান তোলেছেন। কারণ ৫ ওভার ৫ বলে খেলা শেষে ম্যাচে হানা দেয় বৃষ্টি। ঘণ্টা খানেক ম্যাচ বন্ধ ছিল। তাতে ম্যাচের দৈর্ঘ্য কমে আসে।

১৪ ওভারের ম্যাচ হওয়ায় আক্রমণাত্মক খেলার চেষ্টা করেছেন ব্যাটাররা। তাতে সফলও হয়েছেন। বিশেশ করে হারমানপ্রীত। অধিনায়ক ২৬ বলে করেছেন ৩৯ রান। শেষদিকে রিকা ঘোষ করেছেন ১৫ বলে ২৬ রান।